রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০০ অপরাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
এস এম আকবর সরদারকে পুনরায় ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী ঝালকাঠি মন্ডপে মন্ডপে মহা নবমী পূজা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠি জেলা রাজস্ব বিষয়ক সভা জামালপুরে পূজামন্ডপ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজের সেকেন্ড অফিসারের মৃত্যু চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানা পুলিশের হাতে ভুয়া পুলিশ আটক ইলিশ আহরনে বিরত থাকা পৌরসভার ৪৯৬ জেলে পেল মানবিক খাদ্য সহায়তার চাল বামনায় গাছ থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু নোয়াখালী সুবর্ণচরে মন্দিরে মন্দিরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসব বিরামপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যােগে পূজা মণ্ডপে অনুদান প্রদান

১৭ রোগীকে বিষপ্রয়োগের অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৮ মে, ২০১৯
  • ১৩৮ Time View

অনলাইন ডেস্ক।।

ফ্রান্সের এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ১৭ জন রোগীকে বিষপ্রয়োগের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। ওই চিকিৎসকের নাম ফির দ্য পি চিয়ের। তিনি একজন অবেদনবিদ। অভিযোগ রয়েছে, তাঁর বিষপ্রয়োগের কারণে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আইনপ্রণেতাদের অভিযোগ, চিয়ের স্বেচ্ছায় অজ্ঞান করার ওষুধের প্যাকেটে বিষপ্রয়োগ করেন। জরুরি পরিস্থিতি তৈরি করা ও নিজের কেরামতি দেখানোই তাঁর উদ্দেশ্য ছিল। তবে চিয়ের এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। দোষী সাব্যস্ত হলে চিয়েরের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

অবশ্য চিয়েরের আইনজীবী জেন ইভে লি বহোইয়া এএফপিকে বলেন, তদন্তে কিছুই পাওয়া যাবে না। তিনি বলেন, চিয়ের বিষপ্রয়োগ করেছেন—এ নিছক অনুমান।

চিয়েরের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ আগেও উঠেছে। সে সময় তদন্তও চলেছে। ২০১৭ সালের মে মাসে বেসান এলাকায় প্রথম সাতটি বিষপ্রয়োগের ঘটনা নিয়ে চিয়েরের বিরুদ্ধে তদন্ত চলে। পরে তাঁকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। কিন্তু ওষুধ দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়।

অস্ত্রোপচার চলাকালে ৬৬ জন রোগী হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তাঁদের ব্যাপারে চিকিৎসক চিয়েরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

আইন কৌঁসুলি এচেনা মওতো স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, চিয়েরের সঙ্গে তাঁর সহকর্মীদের বিরোধ ছিল। যখনই অস্ত্রোপচার কক্ষে কোনো অঘটন ঘটত, তখনই চিয়েরকে সেখানে পাওয়া যেত। সন্দেহজনক কিছু না থাকলেও চিয়ের দ্রুত কারণ খুঁজে বের করতেন।

তবে চিয়ের এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ফল যা–ই হোক, আমার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গেছে। বিষপ্রয়োগের অভিযোগ উঠলে চিকিৎসককে কেউ বিশ্বাস করতে পারে না। আমার পরিবার ও সন্তানকে নিয়ে আমি বিপর্যয়ের মধ্যে রয়েছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib