রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ

সরকার লাইসেন্স বাতিলের দিকে যাচ্ছে জিপি-রবির

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ আগস্ট, ২০১৯
  • ৯৬ Time View

অনলাইন ডেস্কঃ

পাওনা টাকা পরিশোধ না করায় মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণ ফোন ও রবির বিরুদ্ধে এ্যাকশনে যাচ্ছে সরকার। অপারেটর দু’টির লাইসেন্স বাতিলের মত চূড়ান্ত পদক্ষেপের দিকে যাচ্ছে সরকার বলে জানিয়েছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। তিনি জানান “আমরা তো প্রথমে ক্যাপ (ব্যান্ডউইথ কমিয়ে দেওয়া) করেছি, পরে তাদের এনওসি (সেবার অনুমোদন ও অনাপত্তিপত্র) দেওয়া বন্ধ করেছি। এখন তাদের নোটিস দেওয়া, আরও আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছি।”

মন্ত্রী বলেছেন, ওই দুই অপারেটরের লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবে না- তা জানতে চেয়ে ইতোমধ্যে নোটিস পাঠানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে টেলিযোগাযোগ খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসিকে। তিনি জানান, আমি দীর্ঘদিন যাবত চেষ্টা করছি। না এরা এক টাকা দিয়েছে, না কানে তুলছে যে সরকারের কাছে তাদের দেনা আছে।

বিটিআরসির দাবি, গ্রামীণফোনের কাছে নিরীক্ষা আপত্তির দাবির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা এবং রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে তাদের।

তাগাদা দেওয়ার পরও ওই টাকা পরিশোধ না করার যুক্তি দেখিয়ে গত ৪ জুলাই গ্রামীণফোনের ব্যান্ডউইথ ক্যাপাসিটি ৩০ শতাংশ এবং রবির ১৫ শতাংশ সীমিত করতে আইআইজিগুলোকে নির্দেশ দেয় বিটিআরসি।

কিন্তু তাতে গ্রাহকের সমস্যা হওয়ায় ১৩ দিনের মাথায় ওই নির্দেশনা প্রত্যাহার করে নেয় বিটিআরসি। এরপর ২২ জুলাই গ্রামীণফোন ও রবিকে বিভিন্ন প্রকার সেবার অনুমোদন ও অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেওয়া স্থগিত রাখার ঘোষণা দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

এই পরিস্থিতিতে লাইসেন্স কেন বাতিল করা হবে না- তা জানতে চেয়ে নোটিস দেওয়ার এখতিয়ার সরকারের আছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, “গা যেহেতু করছে না, আমরা তো জাতীয় অর্থ পানিতে ফেলে রাখতে পারি না। এই ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দিতে পারি না। আমাদের দিক থেকে বিটিআরসিকে বলা হয়েছে তোমরা চূড়ান্ত নোটিস দাও।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib