মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
বানারীপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা এস এম শামীম ব্যাপারী’র ইন্তেকাল বানারীপাড়া চাখার ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চায় আওয়ামী লীগ নেতা নাসির উদ্দিন যথাযথ মর্যাদায় লক্ষ্মীপুরে আন্তর্জাতিক নারীকে দিবস পালন করেছে জেলা প্রশাসন দিনাজপুরে চাঁকা বাস্ট হয়ে হেলপারের মৃত‍্যু তালতলীতে ৫ম শ্রেনীর শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টায় কলেজের দপ্তরীর বিরুদ্ধে মামলা আলমডাঙ্গায় ভ্রাম্যমাণ অভিযানে ২ টি প্রতিষ্ঠানে ২৯ হাজার টাকা জরিমানা বানারীপাড়া সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী আক্তার মোল্লা বাগেরহাটের বাদোখালী চাচা-ভাতিজার উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বাগেরহাটে আলোচনা সভা চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

শিক্ষা সচিব এ এইচ এম এনায়েত হোসেন ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে নেপালি শিক্ষার্থীদের হোস্টেল থেকে বের করার অভিযোগ

রংপুর ব্যুরোঃ
  • Update Time : সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৬ Time View
রংপুরের নর্দান মেডিক্যাল কলেজের ৩২ নেপালি শিক্ষার্থীকে রাতের বেলা হোস্টেল থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।
রোববার রাত ১২টার দিকে নেপালি শিক্ষার্থীদের আবাসিক হোস্টেল নগরীর পাকার মাথা এলাকায় নুরুল ইসলামের ভবনে এই ঘটনা ঘটে।  আজ সোমবার দুপুরে কয়েক দফা দাবিতে ওই মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন  করেছে । শিক্ষা বিভাগের সচিব এ এইচ এম এনায়েত হোসেন রংপুর মেডিকেল কলেজে মেডিকেল কলেজে শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়ন শীর্ষক সেমিনারে যোগদান করে চলে যাবার সময় দুপুরে শিক্ষার্থীরা তাকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে ।কলেজ কর্তৃপক্ষ বলছে, শিক্ষার্থীরা হোস্টেল ভাড়া দেননি বলে বাড়ির মালিক তাদের বের করে দিয়েছে।নেপালি শিক্ষার্থী রামেজ জেটাল বলেন, রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে আমাদের ৩২ জনকে হোস্টেল থেকে বের করে দেয় বাড়ির মালিক। কেন আমাদের এভাবে বের করে দিল তা আমরা জানি না।‘আমরা তো এই দেশের না। এভাবে বের করে দিলে কোথায় যাব? আমরা যেন বাধ্য হয়ে দেশে ফিরে যাই, সে জন্য কলেজ কর্তৃপ কৌশলে এই কাজ করছে।’নেপালি শিক্ষার্থী সংগীত সাহা বলেন, আমরা যখন ভর্তি হই, তখন হোস্টেল খরচ ও কলেজের সব টাকা একবারেই দিই। তো হোস্টেল থেকে বের করে দিবে কেন আমাদের?এক মাস আগে আমরা যখন আন্দোলন করেছি তখন তারা এক মাসের সময় চায়। আমরা দিয়েছি। কিন্ন্তু কই ইন্টার্নশিপ তো করতে পারছি না। আমাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হ”ছে, সঙ্গে টাকাও নেই। অ্যাম্বাসিতে গিয়েছি; তারাও কিছু করছে না।বাংলাদেশি শিক্ষার্থী রওনক বলেন,  এমন বিপদের সময় আমরা নেপালি শিক্ষার্থীদের পাশে দঁাড়িয়েছি। তাদের সহায়তা করায় আমাদেরকেও হুমকি দেয়া হয়েছে।নর্দান মেডিক্যাল কলেজের পরিচালক আফজাল হোসেন জানান, নেপালি শিক্ষার্থীদের আবাসিক হোস্টেল হিসেবে নুরুল ইসলামের চারতলা ভবনের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ তলার ফ্ল্যাট ভাড়া নেওয়া হয়।১১ মাসের ভাড়া বাকি থাকলেও কিছু টাকা পরিশোধ করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু‘ কলেজের ভাবমূর্তি নষ্ঠ করতে একটি অসাধু মহল পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা সাজিয়েছে।শিক্ষার্থীদের কোনো ভয়ভীতি দেখিয়ে হোস্টেল থেকে বের করে দেওয়া হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।তবে শিক্ষার্থীরা বাইরে কেন, এমন প্রশ্নের উত্তর দেননি আফজাল হোসেন।হোস্টেল মালিক নুরুল ইসলাম বলেন, এই তিনটি ফ্ল্যাটের মাসিক ভাড়া ৬৫ হাজার টাকা হিসেবে গত আট মাসের ভাড়া বকেয়া আছে। এ নিয়ে আমি অনেকবার কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তারা কোনো উদ্যোগ নেয়নি‘আমার ব্যাংক লোন আছে। তারা (ব্যাংক) চাপ দি”েছ। ভাড়া না দিলে ব্যাংকের কিস্তি শোধ করব কীভাবে? রোববার রাতে শিক্ষার্থীরা বাইরে গেলে ভবনের মূল গেটে তালা লাগিয়ে দিই। রাতেই রংপুর কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে নেপালি শিক্ষার্থীরা।ওই থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর রাতেই তাদের হোস্টেলে উঠিয়ে দেয়া হয়।রংপুরের বেসরকারি এই মেডিক্যাল কলেজ স্থ’াপন হয় ২০০১ সালে। সে বছরই শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দেয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তর।নিয়মিত তিন শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থী ভর্তি করালেও শর্ত পূরণ না করায় কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় স্বাস্ব্য মন্ত্রণালয়।অনেক দেনদরবার করে ২০০৯ সালে আবার শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি পেলেও ২০১৫ সালে কঠোর হয় মন্ত্রণালয়। ফের কলেজটির কার্যক্রম বন্ধ করতে নির্দেশ দেয়। ততক্ষণে অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হয়ে যায়। তখন থেকেই অনুমোদন ছাড়াই চলছে প্রতিষ্ঠানটিকলেজের অধ্য অধ্যাপক খলিলুর রহমান বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি )প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা এবং বৈঠক হয়েছে। আমরা কাগজপত্র নিয়ে মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তরে যাচিছ সমাধানের জন্য। যথাসম্ভব চেষ্টা করা হচেছ। দ্রুত সমাধান হবে আশা করছি। নর্দান প্রাইভেট মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের সাথে কলেজ কতৃপক্ষের প্রতারনার প্রতিবাদে ও মাইগ্রেশনের দাবিতে রংপুর মেডিকেল কলেজের সামনে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা।নেপাল থেকে আসা শিক্ষার্থী সহ সাধার শিক্ষার্থীদের অভিযোগ নর্দান মেডিকেল কলেজে কোন হাসপাতালে নেই শিক্ষক নেই বিএমডিসি এবং রাজশাহি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন অনুমোদন নেই তার পরেও প্রায় ৩ শতাধিক শিক্ষার্থী এখানে ভর্তি হয়ে লেখাপড়া করে আসছেন। কতৃপক্ষ বার বার আশ্বাস দেবার পরেও কোন অনুমোদন আনতে পারেননি। যারা শেষ বর্ষ পাশ করেছেন তাদের ইন্টারশীপের কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি কলেজ কর্তৃপক্ষ। ধার করা রোগী ও শিক্ষক দিয়ে ক্লাশ করিয়ে তাদের প্রতারনার মাধ্যমে শিক্ষা জীবন ধংস করে ফেলেছে। অনেকবার বলেও কোন প্রতিকার হয়নি। সে কারণে তাদের অন্য মেডিকেল কলেজে মাইগ্রেশনের সুযোগ দিয়ে লেখা পড়ার সুযোগ দানের দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শিক্ষা বিভাগের সচিব এ এইচ এম এনায়েত হোসেন রংপুর মেডিকেল কলেজে মেডিকেল কলেজে শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়ন শীর্ষক সেমিনারে যোগদান করে চলে যাবার সময় দুপুরে শিক্ষার্থীরা তাকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে এবং তাদের মাইগ্রেশন করে অন্য মেডিকেল কলেজে লেখাপড়া করার সুযোগ দানের দাবি জানানতে থাকে। এ সময় স্বাস্থ্য সচিব বিষয়টি দেখবেন বলে তড়িঘড়ি গাড়িতে উঠে চলে যান। শিক্ষার্থীরা বলেছে তাদের দাবী পুরন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: মোঃ জহিরুল ইসলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib