শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায়য় দাফন সম্পন্ন তালতলীতে খাস জমি ও প্রাকৃতিক সম্পদে ভুমিহীন নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত উজিরপুরের হারতায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রচার প্রচারণায় চলচ্চিত্র তারকারা ত্রিশা‌লে নির্বাচন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ আমতলীতে স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদ হওয়া পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ৩ মাস ধরে বেতন-ভাতা পাচ্ছেন না শিক্ষক- কর্মচারীরা ১০ মাস পরে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মাসিক সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁয় এনজিও পরিচালনার নামে দেড় কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মানববন্ধন বাগেরহাটের মোল্লারহাটে ডিকেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকর বিরুদ্ধে অর্থ আদায়ের অভিযোগ বাগেরহাটে এবার জাল দলিল,ষ্টাম্প, নকল সীলসহ প্রতারক জাফর আটক
সিলেট বিভাগের সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহীগন যোগাযোগ করুন somoysongjog24@gmail.com

মুক্তিপণের দাবিতে ৪ জেলে অপহরণ, ১০ লাথ টাকার মাছ ও ডিজেল লুট

বাগেরহাট প্রতিনিধি
  • Update Time : রবিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৬ Time View

সুন্দরবন সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে দির্ঘ বিরতীর পর আবারো মাছধরা ট্রলারে ডাকাতি শুরু হয়েছে। গেল এক সপ্তাহে ৪টি ট্রলারে হামলা চালিয়ে মুক্তিপণের দাবিতে চারজন জেলেকে অপহরণ ও এক জেলেকে গুলি করে হত্যা করেছে ডাকাত দল। এ সময় ট্রলারে থাকা ইলিশ মাছ, ডিজেলসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

শনিবার (২০নভেম্বর)দিবাগত রাতে বাগেরহাটের শরণখোলার তিনটি ফিশিং ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতির শিকার ফিশিং ট্রলারগুলো হলো, শরণখোলার এফবি আটভাই ফিশ, এফবি শাওন এবং বরগুনার পাথরঘাটার এফবি মায়ের দোয়া। দস্যুরা এসব ট্রলার থেকে ইলিশ মাছ ও ডিজেলসহ লুটে নিয়েছে কমপক্ষে ১০ লাখ টাকার মালামাল।
দস্যুর কবলে পড়া ওই ট্রলারের চার মাঝি লোকমান হোসেন (৬০), জাকির হোসেন (৫০) ও জাকির মিয়া (৪৮) , অপহরণ করে নিয়ে যায়,একজনের নাম জানা যায়নি ।
রবিবার (২১ নভেমম্বর)সকাল ১০টার দিকে শরণখোলার রাজৈর মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে দস্যুদের কবল থেকে ফিরে আসা জেলেরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

শরণখোলায় ফিরে আসা ‘এফবি আট ভাই’ ফিশ ট্রলারের সহকারী মাঝি মহিদুল ইসলাম জানান, রাত ৯টার দিকে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের কচিখালী থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের গাঙ্গের আইন নামক স্থানে বিভিন্ন এলাকার ১০-১২টি ট্রলারের বহরে জেলেরা মাছ ধরছিলেন। তাদের একেক ট্রলারে ১২জন করে জেলে ছিলেন। এ সময় ২০-২৫জনের একটি সশস্ত্র দস্যুদল নামবিহীন একটি ট্রলারে এসে একের পর এক জেলে ট্রলারে হামলা চালায়। তারা জেলেদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আহরিত ইলিশ, ডিজেল, মোবাইল ফোন, টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। তাদের দুই ট্রলার থেকে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। যাওয়ার সময় দস্যুরা দুই মাঝিকে তুলে নিয়ে যায়। একেক জনের মুক্তিপণ হিসেবে তিন লাখ টাকা করে দাবি করেছে দস্যুরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: কাওসার হামিদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib