শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
৮ দিনেও খোঁজ মেলেনি চুরি হওয়া নবজাতকের ধারের ১০ কেজি চাল ফেরৎ চাওয়ায় ভাইয়ের ছেলের হাতে চাচা খুন! আটক তিন। বানারীপাড়ায় অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিন চির নিন্দ্রায় শায়িত নওগাঁয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়েও বাড়িছাড়া প্রতিবন্ধী পরিবার ত্রিশা‌লে জাতীয় কৃষক স‌মি‌তির সমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত বাগেরহাটে চার দফা দাবিতে ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের মানবন্ধন বাগেরহাট জেলা স্বাস্থ্য অধিকার ফোরামের নব গঠিত কমিটির পরিচিতি সভা মোরেলগঞ্জ আওয়ামী লীগ ১৭ বিদ্রোহী প্রার্থী কে দল থেকে বহিস্কার নওগাঁয় ৪ উপজেলার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরন কার্যক্রম শুরু হয়েছে ৪৪ জেলে সহ ৪ টি ফিশিং ট্রলার আটক
সিলেট বিভাগের সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহীগন যোগাযোগ করুন somoysongjog24@gmail.com

বানারীপাড়ায় নদী ভাঙন রোধে মানববন্ধন

শফিক শাহিন,বানারীপাড়া প্রতিনিধি:
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৪ আগস্ট, ২০২১
  • ২৮ Time View

বরিশালের বানারীপাড়ায় ইলুহার ইউনিয়নের বিহারী লাল একাডেমী ও পুর্ব ইলুহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সন্ধ্যা নদীর ভাঙন থেকে রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৪ আগস্ট মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় বিদ্যালয় দুটি নদী ভাঙনের কবল থেকে রক্ষার দাবীতে  মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন শত শত মানুষ। গত কয়েকদিনের নদী ভাঙনে শত শত পরিবারের শেষ আশ্রয় টুকু নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন ইলুহার ইউপি চেয়ারম্যান ও উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহ স্থানীয় সচেতন মহল।

এদিকে সন্ধ্যা নদীর ভাঙনে ঘরবাড়ি ফসলি জমি সহ সর্বহারা হচ্ছে শত শত পরিবার। চোখের সামনে কৃষকের একমাত্র সম্বল ঘরবাড়ি ও আবাদী জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। আর তা চেয়ে চেয়ে দেখতে হচ্ছে অসহায় কৃষককে ও বাড়ির মালিকদের
বানারীপাড়া সন্ধা নদীর ভাঙনে শত শত বাড়িঘর, মসজিদ, বিদ্যালয়, হাট বাজার সহ বিস্তীর্ণ জনপদ হারিয়ে যাচ্ছে।

বানারীপাড়া উপজেলায় ৮ টি ইউনিয়নের ৫ টি ইউনিয়নই সন্ধ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ে। বাইশারি ইউনিয়ন ও সৈয়দকাঠী ইউনিয়নের বেশির ভাগই নদীতে বিলিন হয়েছে এখনও প্রতিনিয়ত ভাঙনের কড়াল গ্রাস থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা বহু পরিবার।

জানা গেছে যুগ যুগ ধরে সর্বস্ব হাড়িয়ে ছিন্নমূলে পরিণত হয়েছে অনেক পরিবার। সন্ধ্যা নদীর ভাঙনে ইতিমধ্যে সৈয়দকাঠী ইউনিয়নের মসজিদবাড়ি, নলেশ্রী, বাংলাবাজার,বাইশারী ইউনিয়নের বড় খেয়াঘাট দান্ডুয়াড,শিয়ালকাঠি পশ্চিম নাজিরপুর,
নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে এবং এই সব এলাকায় ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

এছাড়াও চাখার ইউনিয়নের লস্করপুর,চিরাপাড়া,দাসেরহাট কালির বাজার ।সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের খেজুরবাড়ি,গোয়াইলবাড়ি,।সদর ইউনিয়নের জম্বুদ্বীপ, ব্রাহ্মণকাঠি, কাজলাহার থেকে

স্বরুপকাঠী উপজেলার সিমানা পর্যন্ত ও ইলুহার ইউনিয়নের মধ্য মলুহার থেকে মইশকাঠালি হয়ে স্বরুপকাঠীর সিমান পর্যন্ত এবং ডুমুরিয়া থেকে বাইশারী ইউনিয়নের সিমানা পর্যন্ত ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।

ভাঙ্নকবলিত এলাকায় এখনও অনেক পরিবার তাদের শেষ আশ্রয়স্থলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছে। এদিকে বাইশারী ইউনিয়নের দান্ডুয়াড খেয়াঘাট ও সৈয়দকাঠীর নলেশ্রীতে কিছু অংশে জিও ব্যাগে বালু ভর্তি করে ফেলা হয়েছে তাতেও রক্ষা পাচ্ছেনা ভুক্তভোগী পরিবার গুলো।

এলাকাবাসীর অভিযোগ বেপরোয়া বালু উত্তলনের কারনে সন্ধ্যা নদীর ভাঙন তিব্র হচ্ছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ শাহে আলমের কাছে নদী ভাঙন রোধকল্পে জোরদাবী জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: কাওসার হামিদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib