বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
ঝালকাঠিতে পুলিশের বাধায় যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা পন্ড ঝালকাঠিতে ১৭৮ জেলেকে চাল বিতরণ বিরামপুরে যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ডিমলায় মোটর সাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৩-যুবক নিহত চুয়াডাঙ্গা পুলিশ অফিস ও জীবননগর থানা পরিদর্শ করলেন অতিরিক্ত ডিআইজি বানারীপাড়ায় জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগীতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত বানারীপাড়ায় প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা খালেক মাঝীর সম্পত্তি জালিয়াতির মাধ্যমে জবরদখলের পায়তারা বাগেরহাটে নিষিদ্ধ সুন্দরী কাঠ জব্দ বাগেরহাটে ৩ দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা বাগেরহাটে ৩২০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

পিরোজপুরে বিদ্যুতের প্রি-পেইড মিটার বন্ধের দাবীতে খুলনা-বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০১৯
  • ৮৭ Time View

পিরোজপুর প্রতিনিধি:
পিরোজপুরে বিদ্যুতের ডিজিটাল প্রি-পেইড মিটার স্থাপন বন্ধ ও স্থাপনকৃত মিটার খুলে নিতে ওজোপাডিকোকে এক মাসের আল্টিমেটাম দিয়েছেন বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা। আজ বৃহস্পতিবার সকালে পিরোজপুরের সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে আয়োজিত প্রিপেইড মিটার বন্ধের দাবীতে খুলনা-বরিশাল মহাসড়কে বলেশর ব্রিজ এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা এ আল্টিমেটাম দেন। এসময়ের মধ্যে দাবী আদায় না হলে আরো কঠিন কর্মসূচিতে যাবেন বলেও জানান গ্রাহকরা।
সড়ক অবরোধ কালে বক্তারা বলেন, প্রি-পেইড মিটারে কি পরিমাণ জালিয়াতি হচ্ছে তার প্রমাণ মিলবে শুধুমাত্র মিটার ভাড়া আদায় সংক্রান্ত বিষয়টিকে ঘিরেই। কেননা কতোদিন পর্যন্ত মিটার ভাড়া নেওয়া হবে তা নির্দিষ্ট করে কোথাও বলা নেই এমনকি মিটারের দামও বলা হয়নি। এতে পিরোজপুরের প্রি-পেইড মিটার গ্রাহকরা শঙ্কিত। পুরনো মিটারটি খুলে যখন নতুন প্রি-পেইড মিটার লাগানো হয়েছিলো তখন বলেছিলো মিটারের জন্য কোনো মূল্য নেওয়া হবে না। এখন মিটার ক্রয় বাবত প্রতি মাসে টাকা কেটে নিচ্ছে।
গ্রাহকরা ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ডিজিটাল এ মিটারে ব্যাংকে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে রিচার্জ করতে হচ্ছে। ১ হাজার টাকা রিচার্জ করলে ৮৩৭.৩৮ টাকার বিদ্যুৎ পাওয়া যায়। বাকি টাকা থেকে মিটার ভাড়া হিসেবে ৪০ টাকা, ডিমান্ড চার্জ ৭৫ টাকাসহ ৫ শতাংশ ভ্যাট হিসেবে ৪৭ .৬২ টাকা কেটে নেওয়া হয়। ডিজিটাল মিটারে অতিরিক্ত বিল এলে বিদ্যুৎ অফিসে গিয়ে সমাধান পাওয়া যেতো। কিন্তু এখন সমস্যা আরো জটিল। আতঙ্কে থাকতে হয়। আগে প্রতি মাসে ৭০০ টাকা বিল দিতে হতো। এখন প্রি-পেমেন্ট পদ্ধতিতে একই পরিমাণ বিদ্যুৎ খরচ করে মাসে ১ হাজার ২০০ টাকা থেকে ১ হাজার ৩০০ টাকা বিল দিতে হচ্ছে।
পরে স্থানীয় প্রশাসনের আশসে প্রায় ঘন্টাব্যাপী এই সড়ক অবরোধ তুলে নেয় স্থানীয় বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib