বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:০৯ অপরাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
কুয়াকাটায় শুভ উদ্বোধন হলো খাবার বাড়ি রেস্তোরা স্থানীয় পর্যায়ে উন্নয়ন করতে হলে পৌরসভার নিজস্ব আয় বৃদ্ধির কোন বিকল্প নাই বাগেরহাট জালটাকা তৈরি ও ক্রয়-বিক্রয় চক্রের এক সদসস্য আটক নীলফামারীর একজন নারী উদ্যোক্তা রঙ্গিন মাছের চাষ করে স্বাবলম্বী বাগেরহাটে ইউপি সদস্য প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ কালের গর্ভে হারিয়েই যাচ্ছে মেয়েদের প্রিয় ‘কুতকুত’ খেলা মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা, প্রস্তুত দু’উপজেলার জেলেরা বিরামপুরে নারী নেটওয়ার্কের সাথে সভা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত ১০ রোহিঙ্গাকে থানায় সোপর্দ পীরগাছায় আসন্ন ১১ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে কর্মীসভা
সিলেট বিভাগের সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহীগন যোগাযোগ করুন somoysongjog24@gmail.com

দৈনিক গণকণ্ঠ খবর প্রকাশে ৩১ বছর পর সরকারি জমি থেকে ব্যাংক সরানোর তোড়জোর

নীলফামারী প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : শনিবার, ১২ জুন, ২০২১
  • ৮৩ Time View

৩১ বছর ধরে অবৈধ উপায়ে চলছিল। দেখেও না দেখার ভান করে ছিলেন সংশ্লিষ্টরা। সরকারি জমির উপর ঘর নির্মাণ করে ব্যাংকের কাছ থেকে নির্বিগ্নে ভাড়া উত্তোলন করছিল চক্রটি। এসম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন গত ৯জুন দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকায় প্রকাশের পর, নড়েচড়ে বসেছেন রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) কর্তৃপক্ষ। ব্যাংকের একাধিক সূত্র জানায়, খবর প্রকাশের পর যতদ্রুত সম্ভব ব্যাংকের শাখা ভবনটি অন্যত্র সরানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। করোনাকাল উপেক্ষা করে গত শুক্রবার রেডজোন রাজশাহী থেকে এসে ব্যাংকের এমডি মোঃ ইসমাইল হোসেন নীলফামারী সার্কিট হাউজে “ব্যবসায়ীক পারফর্মেন্স মূল্যায়ণ” সভা শেষে সংশ্লিষ্টদের এ নির্দেশনা দেন বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য ১৯৮৯ সালের ১লা জুন নীলফামারী সদর উপজেলার চাপড়া সরমজানী ইউনিয়নের জনৈক আবুল কাশেম চৌধুরী বেড়াডাঙ্গা মৌজার যাদুরহাট বাজারে আধাপাকা টিনসেড ঘর নির্মাণ দেখিয়ে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব) এর যাদুরহাট শাখার সাথে ভাড়ায় চুক্তিবদ্ধ হয়ে ভাড়া উত্তোলন করে আসছিলেন। এদিকে যে দাগ খতিয়ান ও জমির উপর ব্যাংকের শাখা ঘরটি রয়েছে তা আদৌ ওই ব্যক্তির নয় মর্মে ২০১৬ইং সালের ৪ঠা ফেব্রয়ারি সহকারি কমিশনার (ভূমি), নীলফামারী সদর এবং ১৯৯৪ সালের ২৫মে চাপড়া সরমজানী ইউনিয়ন ভূমি অফিস ওই দাগ খতিয়ান ভূক্তজমি আবুল কাশেমের নয় মর্মে প্রতিবেদন দেয়। বছর খানেক আগে নতুন করে এগ্রিমেন্ট করার সময় ততকালিন শাখা ব্যবস্থাপকের বিষয়টি নজরে এলে তিনি উপর মহলে লিখিত ভাবে জানানোর পরেও রাকাব প্রধান কার্যালয়ের জনৈক কর্মকর্তার মৌখিক নির্দেশে চলতি বছরের মার্চ মাসে ভাড়া বৃদ্ধিসহ নতুন করে এগ্রিমেন্ট করা হয়েছে। এদিকে ব্যাংকের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, ব্যাংক অন্যত্র স্থানান্তরের জন্য এরই মধ্যে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তবে বসে নেই ঘর মালিকও। তিনিও রাকাবের উপর মহলে নানামুখী তদবির অব্যাহত রেখেন বলে জানা গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib