শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
নীলফামারীতে ভোকেশনাল ট্রেনিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হিলিতে ৪৫০পিছ ইয়াবাসহ আটক ২ এখনও থেমে থেমে জ্বলে উঠছে বিভিন্ন জায়গা সুন্দরবনের আগুন, পুড়েছে ১০ একর বনভূমি পারিবারিক কবর স্থানে চির নিদ্রায় শায়িত হলেন উপজেলা চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার নওগাঁয় ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে নিয়ে যাবার সময় চুরি করে নেওয়ার এক ঘন্টার মধ্যে পাঁচ সদস্য গ্রেফতারঃ চুরি যাওয়া পঞ্চাশ হাজার টাকা উদ্ধার জীবননগর শিয়ালমারী পশুহাটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন্স ড্রিলশেডে মাসিক কল্যাণ সভা ও ঈদ উপহার বিতরণ আমতলীর কান্তার খালের উপর ঝুকিপূর্ন লোহার সেতু জনগনের চলাচলে ভোগান্তি ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আমতলীর ৩৫ হাজার ৫৮৬ টি পরিবার পাচ্ছে আর্থিক সহায়তা
সিলেট বিভাগের সকল জেলায় জেলা প্রতিনিধি আবশ্যক। আগ্রহীগন যোগাযোগ করুন somoysongjog24@gmail.com

দেশের সর্বপ্রথম ‘ডিজিটাল’ কাস্টমস বেনাপোল

বেনাপোল প্রতিনিধি
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১
  • ৬ Time View

দেশের আমদানি-রফতানি বাণিজ্যকে গতিশীল, রাজস্ব ফাঁকি রোধ ও শুল্কায়নে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনতে ‘বিকম’ নামে একটি নতুন সফটওয়্যার উদ্বোধন করেছে বেনাপোল কাস্টমস হাউস। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এ প্রথম বেনাপোল কাস্টমস হাউসই একমাত্র ডিজিটাল কাস্টম হাউসে উন্নীত হলো। কাস্টমস সূত্র জানায়, আমদানি-রফতানি পণ্যবাহী ট্রাক ও পণ্যের তথ্য সংগ্রহ করতে জিরোপয়েন্টে ইতিপূর্বে কার্গো শাখায় কাস্টমস, বন্দর ও বিজিবি যৌথভাবে এন্টি করত। ফলে একটি ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করতে সময় লাগতো ৩০ মিনিট। বর্তমানে ‘বিকম’ সফটওয়্যারের মাধ্যমে বারকোড ব্যবহার করায় সময় লাগছে মাত্র ৫ মিনিট।
বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ৪০০ থেকে ৫০০ ট্রাক পণ্য আমদানি হয় ভারত থেকে। ভারতীয় এসব ট্রাকের অবস্থান ও কোন শেডে পন্য আনলোড হচ্ছে তা মুহুর্তেই জানা যাচ্ছে বিকমের মাধ্যমে। আমদানিকারক ও সিএন্ডএফ এজেন্ট’র ঝুঁকিপূর্ণ পণ্যের বিশ্লেষণও দ্রত সম্ভব হয়।
দেশের যেকোন স্থানে অবস্থান করেও আমাদনি-রফতানি পণ্যবাহি ট্রাকের সুনির্দিস্ট স্থান নির্ণয় করা যাচ্ছে। এছাড়াও মুহুর্তেই জানা যাচ্ছে, বকেয়া রাজস্ব, ব্যাংক গ্যারান্টি, আন্ডারটেকিং ও সিএন্ড এফ এজেন্ট লাইসেন্সের সকল তথ্য।
বেনাপোল কমিশনার আজিজুর রহমানের নির্দেশে অতিরিক্ত কশিনার ড. নেয়ামুল ইসলামের একক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশে এই প্রথম কাস্টমস হাউসে বিকম সফটওয়্যার তৈরী করা সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে ১৫টি মডিউলের মাধ্যমে আমাদনি-রফতানি বাণিজ্য গতিশীল, শুল্কায়ন স্বচ্ছতা ও প্রতিদিন পাসপোর্ট যাত্রীদের যাতায়াত মনিটরিং, চোরাচালানী পণ্য আটকসহ কাস্টমস ও বন্দরের সার্বিক ব্যবস্থাপনা পর্যবেক্ষন করছেন কমিশনার, অতিরিক্ত কমিশনারসহ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।
এর মাধ্যমে ঝুঁকিপূর্ণ রাসায়নিক পণ্য ডিটেক্ট করা দ্রত সম্ভব হয় এবং বন্দরের গুদামে সংরক্ষিত বাজেয়াপ্ত মালামাল সমূহের অবস্থান নিশ্চিত করা যায়। পণ্যের রাসায়নিক পরীক্ষার ফলাফল জালিয়াতি করা সম্ভব নয় বলে এটি অত্যন্ত নিরাপদ একটি সফটওয়্যার।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib