সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ০৫:১৭ অপরাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
মিথ্যা মামলায় বন্দি জবি শিক্ষার্থীর মুক্তির দাবিতে সহপাঠীদের অনলাইন এক্টিভিটি দিনাজপুরের হিলি স্থল বন্দরে মসলা জাতীয় পন‍্য আমদানী বৃদ্ধি পাওয়ায় দাম কমেছে স্থানীয় বাজারে সমুদ্রের গ্রাসে কুয়াকাটার সৈকত রাণীনগরে স্ত্রী হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের নওগাঁয় আরও ২ জন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত ৬৭৬ জন তালতলীতে পূর্ণাঙ্গ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দাবীতে  একযোগে উপজেলার ১৩ বাজারে মানববন্ধন তালতলীতে সমাজ সেবা অফিসের কম্পিউটার অপারেটর আটক কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. খালেদা খাতুন রেখা করোনায় আক্রান্ত ৯ জন শিক্ষক অবৈধ ভাবে সরকারের লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে নথিপত্র গায়েব ত্রিশাল বিদ্যুৎ অফিসে বঙ্গবন্ধু’র নাম ভুল

ডিজিটাল বিচারের বিলে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেবে সংসদীয় কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • Update Time : বুধবার, ২৪ জুন, ২০২০
  • ৩০ Time View

ভিডিও কনফারেন্সসহ অন্যান্য ডিজিটাল মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম চালানোর সুযোগ রেখে ‘আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার বিল, ২০২০’ নামে সংসদে উত্থাপিত বিলে দেশের বিশিষ্ট আইন বিশেষজ্ঞদের মতামত নেবে সংসদীয় কমিটি।

বুধবার (২৪ জুন) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১০ম বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরু টেলিফোনে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বৈঠকে বিলটি নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় বিলটি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা, অধিকতর বিচার বিশ্লেষণ ও মতামত গ্রহণের জন্য দেশের প্রখ্যাত আইন বিশেষজ্ঞদের আমন্ত্রণ জানানোর সুপারিশ করা হয়। কমিটির পরবর্তী বৈঠক ২৮ জুন অনুষ্ঠিত হবে। ওই বৈঠকে বিশেষজ্ঞ মতামত নিয়ে চূড়ান্ত করা হবে।

গতাকাল মঙ্গলবার (২৩ জুন) ‘আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার বিল- ২০২০’ সংসদে তোলা হয়। সংসদে উত্থাপিত বিলে ভার্চুয়াল উপস্থিতির সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, অডিও-ভিডিও বা অনুরূপ অন্য কোনো ইলেকট্রনিক পদ্ধতির মাধ্যমে কোনো ব্যক্তির আদালতে বিচার বিভাগীয় কার্যধারায় উপস্থিত থাকা ও অংশগ্রহণ। করোনাভাইরাসের কারণে এখন এটি অধ্যাদেশ হিসেবে আছে। পরে বিলটি ৫ দিনের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেয়ার আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সসহ অন্যান্য ডিজিটাল মাধ্যমে আদালতের কার্যক্রম চালানোর সুযোগ রেখে গত ৭ মে মন্ত্রিসভা এ সংক্রান্ত অধ্যাদেশের খসড়ায় অনুমোদন দেয়ার পর তার ভিত্তিতে ভার্চুয়াল আদালতের কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।

নিয়ম অনুযায়ী অধ্যাদেশ জারির পর তা সংসদে তোলা হয় গত ১০ জুন। অধ্যাদেশটি আইনে পরিণত করতে হলে চলমান অধিবেশনের প্রথম বৈঠকের তারিখ হতে পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়কে জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করে অনুমোদন করাতে হবে। তা না হলে ৩০ দিন অতিবাহিত হলে অধ্যাদেশটি কার্যকারিতা লোপ পাবে। এজন্য করোনার মধ্যেই আজ বৈঠক করে কমিটি। এটি আগামী ২৯ জুন পাস হতে পারে বলে সংসদীয় কমিটির একটি সূত্র জানিয়েছে।

বৈঠকে কমিটির সদস্য মো. আব্দুল মজিদ খান, মো. শহীদুজ্জামান সরকার, শামীম হায়দার পাটোয়ারী ও গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকার অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া বৈঠকে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সচিব নরেন দাস, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: মোঃ জহিরুল ইসলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib