বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৩ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
ঝালকাঠিতে পুলিশের বাধায় যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা পন্ড ঝালকাঠিতে ১৭৮ জেলেকে চাল বিতরণ বিরামপুরে যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ডিমলায় মোটর সাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৩-যুবক নিহত চুয়াডাঙ্গা পুলিশ অফিস ও জীবননগর থানা পরিদর্শ করলেন অতিরিক্ত ডিআইজি বানারীপাড়ায় জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগীতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত বানারীপাড়ায় প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা খালেক মাঝীর সম্পত্তি জালিয়াতির মাধ্যমে জবরদখলের পায়তারা বাগেরহাটে নিষিদ্ধ সুন্দরী কাঠ জব্দ বাগেরহাটে ৩ দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা বাগেরহাটে ৩২০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবেলায় প্রস্তুত পিরোজপুর

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২ মে, ২০১৯
  • ১৭৬ Time View

পিরোজপুর প্রতিনিধি :
প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে পিরোজপুর জেলা প্রশাসন। পিরোজপুর জেলায় ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবেলায় ১৯৩ টি সাইক্লোন শেল্টার সহ বিভিন্ন প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন।
জেলা প্রশাসন থেকে ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবেলায় পিরোজপুর জেলায় সকল সাইক্লোন সেল্টার গুলো পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে প্রস্তুত সহ আশ্রয় স্থলে জনগণকে আনার সব ধরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। উপকূলীয় এলাকায় জনগণকে সচেতন ও সর্তক করতে জেলা তথ্য অফিস ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করার নিদেশ দেয়া হয়েছে। জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জি এন সরফরাজ জানান, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের জন্য ইতিমধ্যেই ১ হাজার ২২৫ জন সেচ্ছাসেবক তাদের প্রস্তুতিমুলক কার্যক্রম শুরু করেছে। সুন্দরবন সংলগ্ন মাঝের চর এলাকায় সিপিসির স্বেচ্ছা সেবকরা হাত মাইক দিয়ে মানুষকে সতর্ক করার পদক্ষেপ নিয়েছে।লাল পতাকা টানিয়ে মানুষকে সতর্ক করা হচ্ছে। ৮নং বিপদ সংকেত দেখা দিলেই সাথে সাথে মানুষ জনকে সাইক্লোন শেল্টারে দ্রুত আনার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন জানান, সব ধরণের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া ৬৫ টি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখার পাশাপাশি জেলার ৭টি উপজেলায় ৮টি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে এবং প্রস্তুত রাখা হয়েছে ১৯৩টি সাইক্লোন শেল্টার। এছাড়া দুর্যোগ পরবর্তী সময় মোকাবেলার জন্য দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে ২০০ টন চাল, ২০০০ প্যাকেট শুকনো খাবার ও ৫ লক্ষ টাকা বরাদ্ধ পেয়েছে জেলা প্রশাসন। জনসাধারণকে সচেতন করার জন্য তথ্য অফিস ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে বলেও সভা থেকে জানানো হয়।
এদিকে ঘূর্ণিঝড় ফনীর ভয়াবহতা সম্পর্কে অবগত নয় উপকূলের অনেক মানুষ। এছাড়া দরিদ্র শ্রেণির মানুষের দুর্যোগকালীন সময় মোকাবেলার জন্য নাই পর্যাপ্ত সক্ষমতা। এছাড়া খাবার পানি বিশুদ্ধ করার জন্য পানি বিশুদ্ধ করন ট্যাবলেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া ইতোমধ্যে জেলা ও উপজেলার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib