রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০০ অপরাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
এস এম আকবর সরদারকে পুনরায় ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী ঝালকাঠি মন্ডপে মন্ডপে মহা নবমী পূজা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠি জেলা রাজস্ব বিষয়ক সভা জামালপুরে পূজামন্ডপ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজের সেকেন্ড অফিসারের মৃত্যু চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থানা পুলিশের হাতে ভুয়া পুলিশ আটক ইলিশ আহরনে বিরত থাকা পৌরসভার ৪৯৬ জেলে পেল মানবিক খাদ্য সহায়তার চাল বামনায় গাছ থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু নোয়াখালী সুবর্ণচরে মন্দিরে মন্দিরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসব বিরামপুরে উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যােগে পূজা মণ্ডপে অনুদান প্রদান

কুয়াকাটায় বীচ কার্ণিভাল উৎসব

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯
  • ৮২ Time View

হোসাইন আমির,কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

কুয়াকাটায় বর্ষার মৌশুমে শুরু হতে যাচ্ছে বীচ কার্ণিভাল উৎসব। আগামী ২৭ও ২৯ শে জুন দেশের বরন্য শিল্পী,স্থানীয় শিল্পী এবং সৈকতে উম্মুক্ত ঘুড়ি উৎসব, ঘোড় দৌড়, ফায়ার ক্যাম্পিং,বারবি-কিউ ও ফুড ফেষ্টিবল। আরো থাকছে জেলা শহর ও স্থানীয়দের অংশগ্রহনে বীচ ক্রিকেট,ফুটবল,হাডু-ডু,বলিভল প্রতিযোগিতা দিয়ে এ বীচ কার্নিভাল উৎসব। এ উৎসবের আয়োজক সংস্থা বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড পটুয়াখালী জেলা প্রশাসককে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করার জন্য দ্বায়িত্ব দিয়েছেন। পর্যটকদের বিনোদনে একটু ভিন্ন মাত্রা যোগ করতে বর্ষা মৌসুমে বীচ কার্ণিভাল আয়োজন করা হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন জানান। অফ সিজনে বীচ কার্ণিভাল উৎসবের আয়োজন হলেও পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে নেয়া হচ্ছে ব্যাপক প্রস্তুতি। প্রচার প্রচারণার অংশ হিসেবে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কের গুরুত্বপুর্ণ স্থানে এবং শেখ জামাল,শেখ কামাল,শেখ রাশেল সেতুর দুই পাশে লাগানো হবে ব্যানার,ফেষ্টুন। উৎসবে স্থানীয় মানুষের অংশগ্রহন নিশ্চিত করতে মাইকিং করা হচ্ছে বিভিন্ন স্থানে। সমুদ্র সৈকত সহ পর্যটন নগরীর বিভিন্ন স্পটে আলোক সজ্জায় সজ্জিত করা হবে। আগত পর্যটকদের বিনোদন দিতে আয়োজন করা হচ্ছে কনসার্ট। কনসার্টে গান নৃত্য পরিবেশন করবেন দেশের তারকা শিল্পীরা। বিশেষ আকর্ষন হিসেবে থাকছে রাখাইনদের সংগীত, নৃত্য এবং পিঠা উৎসব । পাশাপাশি থাকছে স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহনে গান,নৃত্য,কমেডি সহ মন মাতানো নানা আয়োজন। সমুদ্রে প্রস্তুত রাখা হবে ওয়াটার বাইক,বীচ বাইক,স্প্রীডবোর্ড ফেষ্টিবল। পর্যটকরা বর্ষায় সমুদ্রের উত্তাল ঢেউয়ে বিনোদন করতে পারেন সে জন্য এ ব্যবস্থা । সৈকতে উম্মুক্ত ঘুড়ি উৎসব, ঘোড় দৌড়, ফায়ার ক্যাম্পিং,বারবি-কিউ ও ফুড ফেষ্টিবল। আরো থাকছে জেলা শহর ও স্থানীয়দের অংশগ্রহনে বীচ ক্রিকেট,ফুটবল,হাডু-ডু,বলিভল প্রতিযোগিতা। ২৭ জুন সকাল ৯টায় র‌্যালী,শোভা যাত্রা এবং সকাল ১০টায় উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হবে দুইদিন ব্যাপী বীচ কার্ণিভাল উৎসব। ২৮ জুন রাত ৯টায় শুরু হবে সমাপণী উৎসব এ খবর জানিয়েছেন কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.মুনিবুর রহমান।
উৎসবের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে টুরিষ্ট পুলিশ,থানা পুলিশ,র‌্যাব,সাদা পোশাকে গোয়েন্দা, আনসার ভিডিভি থাকবে। প্রায় দেড় শতাধিক অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে। সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকছে সমুদ্র সৈকত ও উৎসবস্থল। পর্যটকরা কুয়াকাটায় আসতে যেন কোন হয়রানীর স্বীকার না হয় এজন্য বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে বিশেষ নজরদারীতে থাকছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে এমন তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।
বীচ কার্ণিভাল উৎসবকে সফল করতে রবিবার রাত ৮টায় পর্যটন হলিডে হোমস’র হল রুমে প্রস্তুতিমুলক এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.মুনিবুর রহমান এ সভার সভাপতিত্ব করেন। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম রাকিবুল আহসান, কুয়াকাটা ট্যুরিষ্ট পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মো.জহিরুল ইসলাম,কলাপাড়া পৌর মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার,কুয়াকাটা পৌর মেয়র আঃ বারেক মোল্লা, কলাপাড়া উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা সুমন চন্দ্র দেবনাথ,পর্যটন হলিডে হোমস’র ব্যবস্থাপক সুভাস চন্দ্র নন্দী ও মহিপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো.সাইদুল ইসলাম। এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পর্যটনমুখী ব্যবসায়ী, পৌর কাউন্সিলর সহ জেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা,সাংবাদিক,রাজনীতিবিদ,ট্যুর অপারেটর ও বিভিন্ন শ্রেনী পেশার প্রায় শতাধিক মানুষ।
এ ব্যাপারে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মো.মতিউল ইসলাম’র সভাপতিত্বে সোমবার বেলা ১১টায় দরবার হলে প্রস্তুতিমুলক আরো একটি সভা করা হয়েছে। সভায় পটুয়াখালী জেলার প্রশাসনিক দপ্তরের কর্মকর্তা,কলাপাড়া ও কুয়াকাটা পৌর মেয়র, উপজেলা চেয়ারম্যান, পর্যটনমুখী ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ,রাজনীতিবিদ,সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব,ট্যুর অপারেটর নেতৃবৃন্দ ও গনমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় বীচ কার্ণিভাল উৎসবকে সফল ও ঝাঁকজমকপুর্ণ করার জন্য সকলকে যার যার স্থান থেকে কাজ করার অনুরোধ করেন জেলা প্রশাসক। এর আগেও জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে পটুয়াখালী ও কুয়াকাটায় প্রস্তুতিমুলক সভা করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: সময় সংযোগ টুয়েন্টিফোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib