শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন
মুজিব বর্ষ
শিরোনাম :
গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা আদালতের সামনে মামলার বাদীকে প্রাণনাশের হুমকি! জিনিয়া আক্তার সুইটি দিনাজপুর পৌরসভার ১ ঘন্টার প্রতিকী মেয়রের দায়িত্ব পালন করলেন বাগেরহাটে তরুনী ধর্ষন মামলাঃ ইউপি সদস্যসহ ৫ জনের দুই দিনের রিমান্ড জবিতে ‘বাংলাদেশের উপন্যাসে দেশভাগ ও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা’ শিরোনামে পিএইচ.ডি সেমিনার অনুষ্ঠিত ত্রিশালে মায়ের হাতে শিশু খুন ফ্রান্সে মহানবীর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ঝালকাঠিতে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ নীলফামারী সদর ৫ নং টুপামারীর ইউনিয়ন পরিষদে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ। তারাগঞ্জে গরুবাহী নসিমনের নিচে চাপা পড়ে নিহত একজন আউচপাড়া ইউনিয়নের হাড়িপাড়া বিল,ব্যক্তি মালিকানা জমি লিজের মাধ্যমে এলাকাবাসীর মাছ চাষ জবির পরিবহন পুলে নতুন দুইটি এসি মাইক্রোবাস

অসহায় রিক্সা চালককে দোকান উপহার দিলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নাগরীক উদ্যোগ

মোঃ মঈন উদ্দীন চিশতী, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ২০ Time View
অনেকে হয়তো ভুলে গেছেন দিনাজপুরের সেই রিকশাচালক তসলিম চাচার কথা, এতো  হারভাঙ্গা পরিশ্রম করে দিনে ১০০/১৫০ টাকা ইনকাম ছিলো তার, এ টাকায় পরিবারের সংসার চালানো হিমসিম খেতে হতো তাকে, তবুও কষ্টে দিন পার করে দিতেন তিনি।
কিছুদিন আগে এই চাচাকে নিয়ে একটি গল্প লিখেছিলেন সাংবাদিক শাহরিয়ার সুমন সে গল্প অনেকের নজরে এলে বিভিন্নজন বিভিন্ন ভাবে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন এই চাচার প্রতি।
তবে দিনাজপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নাগরীক উদ্যোগ দিনাজপুর এর টিম লিডার আপসানা ইমুর নজরে পোষ্টটি এলে তিনি স্বল্প  পরিশ্রমে সংসার চালানোর জন্য তাকে একটি দোকান করে দেওয়ার কথা বলেন এবং আপসানা ইমু  তার সেই কথা রেখেছেন, সেই চাচাকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নাগরীক উদ্যোগ দিনাজপুর এর পক্ষ থেকে আজ শনিবার (১৭ অক্টোবর) দোকানটি সেই তছলিম চাচার কাছে হস্তান্তর করেন।
নাগরীক উদ্যোগ দিনাজপুর এর টিম লিডার আফসানা ইমু জানান, আমার টিম এর ছোট ভাই বোনেরা রোধ বৃষ্টি উপেক্ষা করে প্রতিদিন বিভিন্ন স্থানে ছুটে যেতো কালেকশন করার জন্য। ১ টাকা থেকে শুরু করে যে যাই দিতো তাই সংগ্রহ করে রাখা হতো, সেই সংগ্রহ করা টাকা জমিয়ে আজ চাচাকে আমরা দোকানটি দিতে পেরেছি।
এ দিকে দোকান পেয়ে তসলিম চাচা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এর সকলের জন্য আল্লাহর নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন। এই দোকানটি পেয়ে তিনি খুব খুশি হয়েছেন বলে জানান। এই দোকানটি পেয়ে তার পরিবারের কষ্ট কিছুটা লাঘব হবে বলে তিনি মনে করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

posted by: মোঃ জহিরুল ইসলাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © by somoy songjog 24 | Developed by Md. Rajib